পাতা

সিটিজেন চার্টার

১। বিনা মূল্যে বহিঃর্বিভাগে রোগীর চিকিৎসা সেবা এবং সরবরাহ সাপেক্ষে ঔষধ দেওয়া হয়।

২। বিনা মূল্যে আন্তঃবিভাগে রোগীর চিকিৎসা সেবা, তিন বেলা খাবার সরবরাহ এবং সরবরাহ সাপেক্ষে ঔষধ দেওয়া হয় ।

৩। বিনা মূল্যে দিবা-রাত্রী জরুরী বিভাগে রোগীর চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয় ।

৪। বিনা মূল্যে ই,পি,আই, সেকশনে শিশুদের এবং গর্ভবতী ও অন্যান্য মহিলাদের টিকা দেওয়া হয় ।

৫। বিনা মূল্যে ল্যাবরেটরীতে রক্ত, প্রস্রাব, কফ ও পায়খানা পরীক্ষা করা হয়।

৬। বিনা মূল্যে দিবা-রাত্রী গর্ভবতী ও প্রসূতি সেবা দেওয়া হয় এবং ডেলিভারী করানো হয়।

৭। বিনা মূল্যে কুষ্ট রোগীদের চিকিৎসা সেবা এবং ঔষধ দেওয়া হয়।

৮। বিনা মূল্যে যক্ষা রোগীদের চিকিৎসা সেবা এবং ঔষধ দেওয়া হয়।

৯। বিনা মূল্যে ম্যালেরিয়া রোগীদের চিকিৎসা সেবা এবং ঔষধ দেওয়া হয়।

১০। ও, আর, টি, কর্নারে ডায়রিয়া রোগীদের চিকিৎসা সেবা এবং ঔষধ দেওয়া হয়।

১১। কমপে­ক্সে আগত রোগী ও পরিচর্যাকারীদের স্বাস্থ্য,পুষ্টি, প্রজনন স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা বিষয়ে শিক্ষা দেওয়া হয়।

১২। সরকারী নীতিমালার আওতায় এম্বুলেন্স সার্ভিস দেওয়া হয়।

১৩। বিভিন্ন উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র ,স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্র থেকে রেফারকৃত রোগীদের অধিকতর গুরুত্ব সহকারে সেবা প্রদান করা হয়।

১৪। প্রয়োজন বোধে উন্নত চিকিৎসার জন্য কোন কোন রোগীকে জেলা হাসপাতালে রেফার করা হয়।

১৫। মোবাইল ফোনের মাধ্যমে জনগনকে চিকিৎসা সেবা ও স্বাস্থ্য শিক্ষা দেওয়া হয়।

 

ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্র এবং উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রের চিকিৎসা সেবা সমূহঃ-

১। বিনা মূল্যে বহিঃর্বিভাগে রোগীর চিকিৎসা সেবা এবং সরবরাহ সাপেক্ষে ঔষধ দেওয়া হয়।

২। বিনা মূল্যে নির্দিষ্ট দিনে শিশুদের এবং গর্ভবতী ও অন্যান্য মহিলাদের টিকা দেওয়া হয় ।

৩। বিনা মূল্যে আর,ডি,টি, রক্ত পরীক্ষা করা হয় এবং ম্যালেরিয়া রোগীদের চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ দেওয়া হয়।

৪। কেন্দ্রে আগত রোগী ও পরিচর্যাকারীদের স্বাস্থ্য, পুষ্টি, প্রজনন স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা বিষয়ে শিক্ষা দেওয়া হয়।

৫। প্রয়োজন বোধে উন্নত চিকিৎসার জন্য কোন কোন রোগীকে উপজেলা/ জেলা হাসপাতালে রেফার করা হয়।

 

কমিউনিটি ক্লিনিকের চিকিৎসা সেবা সমূহঃ-

১। বিনা মূল্যে বহিঃর্বিভাগে রোগীর চিকিৎসা সেবা এবং সরবরাহ সাপেক্ষে ঔষধ দেওয়া হয়।

২। বিনা মূল্যে নির্দিষ্ট দিনে শিশুদের এবং গর্ভবতী ও অন্যান্য মহিলাদের টিকা দেওয়া হয় ।

৩। বিনা মূল্যে আর,ডি,টি, রক্ত পরীক্ষা করা হয় এবং ম্যালেরিয়া রোগীদের চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ দেওয়া হয়।

৪। ক্লিনিকে আগত রোগী ও পরিচর্যাকারীদের স্বাস্থ্য, পুষ্টি, প্রজনন স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা বিষয়ে শিক্ষা দেওয়া হয়।

৫। জন্মনিয়ন্ত্রন সামগ্রীঃ- খাওয়ার বড়ি, কনডম, কপারটি, ইনজেকশন দেওয়া হয় এবং স্থায়ী পদ্ধতির জন্য উদ্বুদ্ধ করা হয়।

৬। প্রয়োজন বোধে উন্নত চিকিৎসার জন্য কোন কোন রোগীকে উপজেলা/জেলা হাসপাতালে রেফার করা হয়।

স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার পরিকল্পনা সেবা দেয়া হয়।

 

মাঠ পর্যায়ে সেবা সমূহঃ-

১। ০-১ বছরের কম বয়সী সকল শিশুদের প্রতি ইউনিয়নের প্রতিটি পূরাতন ওয়ার্ডের প্রতিটি আউটরিচ সেন্টারে যক্ষা, ডিপথেরিয়া, হুপিং কাশি, ধনুষ্টংকার, ইনফ্লুয়েন্জা, হেপাটাইটিস, হাম ও পোলিও রোগের সিডিউল মোতাবেকপ্রতিষেধক টিকা দেওয়া হয়।

২। ১৫-৪৯ বছর বয়সী গর্ভবতী ও সাধারন মহিলাদের সিডিউল মোতাবেক টি টি ৫ ডোজ ধনুষ্টংকারের টিকা দেওয়া হয়।

৩। জাতীয় টিকা দিবস উৎযাপনের দিন ০-৫ বছর বয়সী সকল শিশুদের প্রতি ইউনিয়নের প্রতিটি পূরাতন ওয়ার্ডের প্রতিটি আউটরিচ সেন্টারে পোলিও টিকা খাওয়ানো হয়। ১-৫ বছর বয়সী সকল শিশুদের উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন ১ টি করে ভিটামিন এ ক্যাপসুল এবং ২-৫ বছর বয়সী সকল শিশুদের ১ টি করে কৃমি নাষক বড়ি খাওয়ননো হয়।

৪। জাতীয় ভিটামিন ’এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উৎযাপনের দিন প্রতি ইউনিয়নের প্রতিটি পূরাতন ওয়ার্ডের প্রতিটি আউটরিচ সেন্টারে ১-৫ বছর বয়সী সকল শিশুদের উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন ১ টি করে ভিটামিন এ ক্যাপসুল এবং ২-৫ বছর বয়সী সকল শিশুদের ১ টি করে কৃমি নাষক বড়ি খাওয়ননো হয়।

৫। সমযে সময়ে সরকারের নির্দেশনায় ৯মাস-৫ বছর বয়সী সকল শিশূদের হাম ক্যাম্পেইনের দিন হামের টিকা দেওয়া হয়।

৬। বছরে ২ বার সরকারী / বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালযের ৬-১২ বছর বয়সী সকল ছাত্র-ছাত্রীদের এবং বহিরাগত বালক বালিকা দের ১ টি করে কৃামনাষক বড়ি খাওয়ানো হয়।

৭। ৯ মাস বয়স পূর্ন হওয়ার পর শিশুকে হামের টিকার সাথে ১ টি করে নীল রংয়ের ভিটামিন এ ক্যাপসূল (১ লক্ষ আই, ইউ,) খাওয়ানো হয়।

৮। প্রসূতি মাকে প্রসবের ৬ সপ্তাহের মধ্যে ১ টি করে ভিটামিন এ ক্যাপসূল (২ লক্ষ আই, ইউ,) খাওয়ানো হয়।

৯। টিকা দান কেন্দ্রে আগত অভিভাবক ও পরিচর্যাকারীদের স্বাস্থ্য, পুষ্টি, প্রজনন স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা বিষয়ে শিক্ষা দেওয়া হয়।                                                                                                                                        

১০। টিকা দান কেন্দ্রে এবং মাঠ পরিদর্শন কালে গ্রামের সাধারন জনগনকে ডায়রিয়া, ম্যালেরিয়া, নিউমোনিয়া, যক্ষা, কুষ্ট, রাতকানা ও অপুষ্টি সহ বিভিন্ন রোগের বিষয়ে স্বাস্থ্য শিক্ষা দেওয়া হয়।

১১। টিকা পরবর্তী বিরুপ প্রতিক্রিয়া ও এ,এফ,পি, রোগী খুজে বের করা হয় এবং বিনামূল্যে যথাযথ চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়।

১২। শিশু (০-১১মাস) ও গর্ভবতী ও সাধারন মহিলাদের (১৪-৪৯বছর) টিকা দেওয়ার জন্য রেজিষ্ট্রেশন করা হয়।

১৩। সরকারী নির্দেশ মোতাবেক ভৌগলিক শুদ্ধিকরণ / জি,আর, করা হয়।


Share with :

Facebook Twitter